এইচএসসিতে স্নিগ্ধ! ব্যাচ - ২০২২

“লিখতে বসলে হাত থামতে চায় না,
কিন্তু সমস্যা আজকাল লিখতেও মন চায়না।”

এরকম মনোভাব থেকেই আমার এই ব্লগটির এভাবে পিছিয়ে পড়া। অনেক ব্যস্ততায় না হলেও অনেক ভীতি-সঙ্কিতির মধ্যখান দিয়ে সময় অতিবাহিত হয়ে যাচ্ছে। যাচ্ছে তো যাচ্ছেই আর এইচএসসি আসছি আসছি বলতে বলতে নাগালের মধ্যেই এসে পড়েছে। (HSC Batch-22)

একজন এইচএসসি ক্যান্ডিডেট এর আত্মকথা:

আমি পড়াশুনায় বড্ড, নাহ! বলতে গেলে আমি পুরোপুরি অনিয়মিত। গত ৫/৬ বছর বইয়ের নাগালের বাইরে ছিলাম। ছোটআপুর কথা না শুনে পাকনামি করে 9th grade এ সায়েন্স নেয়া ছিল আমার জীবনে সবচেয়ে বড় ভুল। একই ভুল পুনরায় করলাম ইন্টারে, সায়েন্স পাল্টিয়ে কমার্স নিয়ে। ২য় বর্ষে ভর্তির আগে কমার্স থেকে ছুটি নিয়ে আর্টস নিতে চাওয়াটা মনে হয় আমার অপরাধই ছিল বৈকি। কলেজের ফেইসবুক পেজ থেকে বিভাগ পরিবর্তন করার নির্দেশিকাটা দেখে খুব একটা দেরী করিনি সেদিন কলেজে যেতে। কিন্তু যেয়ে বাড়ি নিরাশ হয়েই ফিরতে হলো। আর্টস এ কোনও সিট ফাঁকা না থাকায় আমাকে ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগেই কন্টিনিউ করতে হলো ২য় বর্ষে।

এদিকে পরীক্ষার বাকি মাত্র অর্ধশতক দিন। করোনাকালীন দুর্ভোগ এর ক্ষতিপূরণ হিসেবে শর্ট সিলেবাসে এইচএসসি এক্সাম হবে ভেবে শ্বস্তি পেলেও অশ্বস্তির বিষয় হয়ে রইল ৯/১o এর বইগুলো। কারণ কমার্স এর বেসিক জানতে হলে আমাকে ৯-১০ থেকেই শুরু করতে হবে। ৪ বছরের পড়া সম্পন্ন করার জন্য আমার হাতে আছে মাত্র ৫০দিন এবং শুরুটা আমার জিরো থেকেই করতে হচ্ছে।

এখনও আমি বই ধরিনি! কিন্তু মনে মনে আমি প্রস্তুত, কারণ তা ছাড়া গতি আমাত নেই। বই এর থেকে ৫বছর ডিসট্রাক্টেড থাকার পর অবশেষে আজ আমার মনে হচ্ছে বইগুলো আমাকে এট্রাক্ট করছে। টেবিলের উপর ভালুক ন্যায় তাকিয়ে থাকা বইগুলোর প্রতি আজ কেমন জানি এক টান অনুভব করতে পারছি!

জানিনা, আসলেই অসম্ভবটা সম্ভব করতে পারব কিনা! জানিনা, দীর্ঘসময়ের বইয়ের থেকে এই দূরত্ব কমিয়ে আনা আদৌ সম্ভবপর কিনা! কিন্তু আমাকে তা পারতেই হবে, সবধরণের আজেবাজে নেশা ছেড়ে পাঠ্যবইয়ের নেশায় আমাকে পড়তেই হবে।🤕

“এই যদি হয় শেষ লেখা,
শেষটা কখনো হয়ইনি লেখা।

(এইচএসসি বৃত্তান্ত থেকে হূট করে আবার ব্লগ বৃত্তান্তে চলে আসতে হলো ! don't mind) নাহ এখানেই জেইন থেমে থাকবেনা। ব্লগটিকে ফ্লপ জেইন হতে দিবেনা। একটা সময় অল্পপেয়ে তুষ্ট থাকতে পারলেও, ব্লগটার রিসেন্ট পারফরম্যান্স আমার একদম ভালো ঠেকেনি। আসলে বলতে গেলে ব্লগটার পিছনে তেমন করে কখনো সময়ই দেয়া হয়নি। মাঝেমধ্যেই ২-১টা আর্টিকেল লিখে পোস্ট করে বসলেও নিয়মিত লেখা হয়নি কখনো। 

আর সময় দেয়াও হবেনা আগামি গুটিকয়েক মাস। কিন্তু সর্বগ্রাস করব আমি এইচএসসির পরপরই। 

নিজের নামে ব্লগ, সেহেতু নামের প্রতি সুবিচার আমি করতে চাই। Still I'm underrated, কিন্তু একজন সফল ব্লগার আমি একদিন হয়ে দেখাবোই, ইনশাল্লাহ! এইচএসসির পর ভালো চাকরি পেলে ব্লগটির পিছনে কিছু ইনভেস্টমেন্ট করার প্রয়োজন আছে। একটা টপলেভেল ডোমেইন কিনে তারপর ব্লগটিকে ভালোভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজড করতে হবে। কিছু গেস্ট রাইটিং থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্লগটিকে প্রমোট করতে হবে। এসব নিয়ে আপাদত ভাবছিনা, সময় এলে কোমরবেঁধেই লেগে পড়ব কাজে। সর্বোপরি জেইন থেমে থাকবে না, আজকে না হয় এইখানেই pause বাটনটা টিপে দিলাম। কারণ-

“focus টা এখন hsc তে দিতে হতে আমি চাই বাধ্য!
প্রশ্নটা যখন উত্তর নিয়ে, রুখবে কার সাধ্য।”

আজীবন হেটার্সদের টিটকারি শুনে গেলাম, অভিযোগের শেষ ছিল না কখনোই। উত্তর জানা ছিল না বলে প্রশ্ন তাড়া করেই আমায় ওরা বিনাযুদ্ধে জিতে যেত। না, সেই প্রশ্নের উত্তর আমি কখনোই দিব না, উত্তর দিবে আমার রেজাল্ট! ইনশাল্লাহ। 

আমি জানি চেষ্টা করলে কেউ কখনো খালি হাতে ফিরে আসেনা। আমি কনফিডেন্ট। কিন্তু আমি সিরিয়াস না। দেখা যাক, এবার পারি কিনা একটু সিরিয়াস হতে! পারতে আমেকে হবেই! গাইজ, প্রে ফর মি & ইচ ক্যান্ডিডেটস! (Hsc Batch-2022)♠

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ