ভ্রম-বিভ্রম (Hallucination) এর ব্যাখ্যা


 ভ্রম নিয়ে আলোচনা করতে গেলে আমার কাছে মনে হয় আমাদের জীবনটাই ভ্রম নিয়েই আয়োজিত।

ভ্রম কী?

ভ্রম (হ্যালুসিনেশন) বলতে বোঝায় কোনও একটা জিনিষ উপলব্ধি করা যেটা আসলে ঘটেইনি। জীবনের বিভিন্ন সময়ে আমরা অদ্ভুত থেকে অদ্ভুত ভ্রমের সম্মুখীন হয়। ভ্রম অনেক ধরণের হয়, তন্মদ্ধ্যে একটি হচ্ছে দৃষ্টি বিভ্রম, আর কমবেশি আমরা সবাই এই ভ্রমটির সাথে মুখোমুখি হই।  দৃষ্টি বিভ্রমের উদাহরণ টানতে গেলে সর্বপ্রথম আমার মনে আসে মরিচীকার কথা। 

মরিচীকা কি?
মরুভূমি অঞ্চলের মানুষের কাছে মরিচীকা একটি প্রতিনিয়ত ঘটনা। মরুভূমি অঞ্চলে স্বাভাবিকভাবেই পানির উপস্থিতি প্রত্যাশা করা যায়না। কিন্তু মরুভূমিতে হাটতে হাটতে এক পর্যায়ে দূর থেকে দেখে মনে হবে সামনেই পানির সন্ধান মিলবে, খুব কাছেই জলাশয়ের অস্তিত্য। কিন্তু যখন আপনি সেই পয়েন্টে এসে দাড়াবেন, দেখবেন কোথাও জলাশয় কিংবা পানির ছিটেফোঁটাও নেই। এটাই মরিচীকা; যা দৃষ্টি বিভ্রমের একটি বাস্তব উদাহরণ।

ভ্রম কেন ঘটে?

ভ্রম মূলত আমাদের মস্তিষ্কের একটি রটনা বৈকি কিছুনা, আমাদের sub-conscious mind এই বানোয়াট ঘটনাগুলোর সৃষ্টি করে। অনেকক্ষেত্রে আমরা কোনও একটা জিনিষ চোখে প্রত্যক্ষ না করলেও আমাদের sub-conscious mind তার উপস্থিতি জানান দেয়; তখন আমাদের মনে হয় জিনিষটি আসলেই আমাদের পাশে বর্তমান কিংবা কোনও একটি ঘটনা আমার আশেপাশেই ঘটছে যার আঁচ আমি করতে পারছি কিন্তু আসলে সেটা মস্তিষ্কের একটি রটনা।

কি কি ধরণের ভ্রম হতে পারে?

পৃথিবীতে এমন কোনো মানুষ নেই যে এই ভ্রম-বিভ্রমতার মুখাপেক্ষী হয়নি। এখানে আমি আমার সাথে কিছু বহুল ঘটিত ভ্রমের উদাহরণ টানব, অর্থাৎ এই বিভ্রমগুলো আমার জীবন থেকে নেয়া। 

দিনের সব ক্লান্তি গায়ে মেখে মাঝে মাঝে আমি যখন শুতে নেই; চোখটা বন্ধ করে যেই ঘুমানোর চেষ্টা করি আমার কাছে মনে হতে থাকে যে, আমার আশেপাশে অনেক মানুষ কথা বলছে! এমন না যে খুব শোরগোল হচ্ছে। আমি তাদের শব্দ বা আওয়াজ নিজের কানে শুনতে পাচ্ছি এমনও নয়; কিন্তু আমি তাদের কথা ঠিকি শুনছি, তাদের ভয়েসও ভাসা-ভাসা বা কখনো কখনো ক্লিয়ারলি আমি বুঝতে পারছি কিন্তু তা আমার কানে আসছে না বরং মস্তিষ্কে এসে জানান দিচ্ছে। মস্তিষ্কে আমি তাদের কথাগুলো এবং গলার স্বর আঁচ করতে পারছি। এটা নিতান্তই আমার মনের ভুল হতে পারে, কিন্তু মাঝেমধ্যে এর স্থায়িত্ব এতক্ষন থাকে যে একটা সময় আমার পুরো ব্যাপারটাই ভৌতিক মনে হতে শুরু করে।

এরকম যে কেবল ঘুমুতে গেলে ঘটে এমন নয়, অনেক সময় রাস্তায় আপন মনে হেটে যেতে যেতে হঠাৎ মনে হয় আশেপাশের মানুষগুলো আমাকে নিয়ে কিছু আলোচনা করছে, তাদের শব্দগুলো আমার কানে আসছে, পূর্বের নেয় যে এবারও আমি কেবলই মস্তিষ্কে এর আঁচ পাচ্ছি এমন নয়, কখনো মনে হয় আমি তাদের কথাগুলো নিজ কানে শ্রবণ করছি। দুয়েকবার হলে মেনে নেয়া যায়; কিন্তু কখনো কখনো লাগাতার এরকম মনে হতে থাকে যে আমি যতদূরই এগুচ্ছি লোকজন আমাকে নিয়ে কিছু না কিছু আলোচনা করছে; তাদের আলোচনাগুলো যেন আমার সাথেই রিলেটেড। কখনো বা মনে হয়, তারা দূরে থেকে আমাকে মারতে আসছে। এরুপ পরিস্থিতিতে নিজেকে অনেক অসহায় মনে হয়। বিজ্ঞান এর কি ব্যাক্ষা দিবে জানিনা; নতুবা এটা কোনও ভৌতিক ক্রিয়াকলাপ নাকি প্রশ্ন করলে অনেকেই তা হেসে উড়িয়ে দিবে, আমাকে তারা নিতান্তই পাগল সাব্যস্ত করবে।

মাঝেমাঝে চোখ বন্ধ করলে লাল নীল মিলে যে অন্ধকার জগতে আমরা প্রবেশ করি সেখানে আপনা আপনি কিছু অবয়ব ভেসে ওঠে; এটাও নিতান্তই মস্তিষ্কের তৈরি দৃশ্য সেটা মানতে আমার আপত্তি নেই কিন্তু তারপরও কিছু কিন্তু থেকে যায়। আর এই কিন্তুর মানে খুঁজতে খুঁজতে ভ্রম কেটে যায়। ভ্রম নিয়ে বিজ্ঞানে অনেক সায়েন্টিফিক ব্যাক্ষা দিতে পারে; তা সত্বেও অনেক মানুষ এমন এমন বিভ্রান্তির শিকার হয়, যার ব্যাক্ষা দিতে গিয়ে বিজ্ঞান, মনোবিজ্ঞান কিংবা ভ্রমবিজ্ঞান বলেও যদি বিজ্ঞানের কোনও সেক্টর থেকে থাকে, নিঃসন্দেহে হিমশিম খেয়ে যাবে। 

তারপর, আরেকটি অর্থহীন ব্লগের এখানেই সমাপ্তি :}

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ